মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে | বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে ২০২৪

Rate this post

মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে = বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে ২০২৪, আসসালামু আলাইকুম প্রিয় ভিজিটর আপনারা সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই ভাল আছেন আপনাদের মাঝে আজকে আমরা নিয়ে এসেছি নতুন একটি পোস্ট। সেই পোষ্টটি হচ্ছে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে = বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে।

বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে অনেকেই মাল্টায় কাজের উদ্দেশ্যে যেয়ে থাকে কিন্তু অনেকেই জানেন না মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে এবং বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে। তবে আগের তুলনায় মাল্টাতে কাজের বেতন কিন্তু অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে বর্তমানে মাল্টাতে বিভিন্ন ফ্যাক্টরির ভিসা, ড্রাইভিং ভিসা,  রেস্টুরেন্ট ভিসা এবং বাসা বাড়িতে কাজের সুযোগ রয়েছে এই সকল কাজ করে ভালো পরিমাণ টাকা উপার্জন করা যায়। তাই চলেন দেখে নেওয়া যাক মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে এবং বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে।

মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে

ভূমধ্যসাগরের ছোট্ট একটি দীপ কান্ট্রি হচ্ছে মাল্টা এই দেশটি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ। তাই এই দেশে সুযোগ-সুবিধা অনেক বেশি এবং টাকার মান বেশি তাই বাংলাদেশ থেকে প্রচুর পরিমাণ শ্রমিক মাল্টাতে যেয়ে থাকে। কিন্তু অনেকেই জানেন না মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে?  বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে মাল্টা যেতে ৮ থেকে ১২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লাগে।

ভিন্ন ভিন্ন এজেন্সি ভিন্ন ভিন্ন রেট নিয়ে কাজ করে থাকে।  মাল্টা যেতে হলে অবশ্যই আপনাকে ভালো একটি এজেন্সি ধরে মাল্টা যেতে হবে। কোন এজেন্সি ৮ লক্ষ টাকা নিয়ে মাল্টা পাঠায় আবার কোন এজেন্সি ১২ লক্ষ টাকা নিয়ে মাল্টা পাঠায়। অর্থাৎ কোন এজেন্সি কত টাকা লাভ করব সেই অনুযায়ী মাল্টা যাওয়ার টাকা নির্ধারিত হয়।

সরকারিভাবে বর্তমানে মাল্টায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি চলছে তাই আপনি খুব সহজেই মাল্টা যাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন। বাংলাদেশ থেকে সরকারিভাবে মাল্টা যাওয়ার জন্য খরচ হয় ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা। আপনি যদি বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে সরাসরি আবেদন করতে পারেন তাহলে আপনার ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা খরচ হবে। কিন্তু আপনি যদি কোন বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে মালটা যেতে চান তাহলে আপনার ৮ থেকে ১২ লক্ষ টাকা খরচ হবে। আশা করি আপনারা আমার এই আর্টিকেলের মাধ্যমে বুঝতে পেরেছেন মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে।

বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে কত টাকা লাগে

আপনারা ইতিমধ্যে জেনে গেছেন যে বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যাওয়ার দুটি উপায় আছে একটি হচ্ছে বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে অপরটি হচ্ছে বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় এর মাধ্যমে। আপনি যদি সরকারিভাবে মালটা যাওয়ার জন্য আবেদন করেন তাহলে আপনার সর্বমোট খরচ হবে ৪ লক্ষ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়তো কিছু কম বেশি হতে পারে।

আর যদি আপনি বিভিন্ন বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে চান তাহলে আপনার সর্বমোট খরচ হবে ৮ লক্ষ টাকা থেকে ১২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। তাই আপনারা সবসময় চেষ্টা করবেন সরকারিভাবে মাল্টা যাওয়ার জন্য। আর একটি কথা মনে রাখবেন মাল্টা ভিসা প্রসেসিং হতে প্রায় ৬ থেকে ৮ মাস পর্যন্ত সময় লাগে তাই মাল্টা যেতে হলে অবশ্যই ধৈর্য সহকারে অপেক্ষা করতে হবে।

বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যাওয়ার উপায়

বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে হলে আপনাকে প্রথমে যে কাজটি করতে হবে তা হচ্ছে মাল্টাতে কাজের জন্য ওয়ার্ক পারমিট এর জন্য আবেদন করতে হবে। এখানে উল্লেখিত বাংলাদেশে বর্তমানে মাল্টা কোন এম্বাসি খোলা হয়নি।  তাই আপনাকে মাল্টা যেতে হলে প্রথমে বাংলাদেশ থেকে আবেদন করতে হবে এবং মাল্টা এম্বাসিতে ইন্টারভিউ দেওয়ার জন্য ভারতে অবস্থিত মাল্টা এম্বাসিতে যেতে হবে।

ভারতে অবস্থিত মাল্টা এ্যাম্বেসিতে আপনার ইন্টারভিউ যদি ভালোভাবে হয় তাহলে আপনার ভিসার জন্য আবেদন হয়ে যাবে। এবং মাল্টা সরকার আপনাকে দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে ভিসা অনুমোদন করে দিবে। ওয়ার্ক পারমিট এবং ভিসা অনুমোদন হওয়ার পরে আপনি বাংলাদেশ থেকে বিমানের টিকিট কেটে মাল্টা চলে যেতে পারবেন।

মাল্টা যেতে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন হয়

আমাদের দৈনন্দিন কাজে সকল ক্ষেত্রেই বেশকিছু ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হয়ে থাকে সেই সকল ডকুমেন্টস ছাড়া কোন কাজ করতে পারি না। তেমনি ভাবে বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে হলেও বেশ কিছু ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে। তাই বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে যে ডকুমেন্টস প্রয়োজন সেই সকল ডকুমেন্টস এর লিস্ট নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যেতে হলে অবশ্যই বৈধ একটি পাসপোর্ট থাকতে হবে।
  • পাসপোর্টে কমপক্ষে ২টি পাতা ফাঁকা থাকতে হবে।
  • পাসপোর্ট এর মেয়াদ কমপক্ষে ০৬ মাসের বেশি থাকতে হবে।
  • অরজিনাল ভোটার আইডি কার্ড এর ফটোকপি।
  • করোনা টিকা কার্ডের অরজিনাল কপি।
  • মেডিকেল রিপোর্টের প্রয়োজন হবে।
  • বাংলাদেশ পুলিশের ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট লাগবে।

মাল্টায় কাজের বেতন কত

বাংলাদেশ থেকে যে সকল ব্যক্তিবর্গ মাল্টা কাজের উদ্দেশ্যে যায় তাদের মনে একটি প্রশ্ন থাকে মাল্টা কাজের বেতন কত? কারণ প্রতিটি ব্যক্তি প্রবাসে যায় টাকা ইনকামের জন্য তাই সবারই জানা প্রয়োজন মাল্টা কত টাকা ইনকাম করা যায়। আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের জানাবো মাল্টায় কাজের বেতন কত।

মাল্টা সরকার প্রতিটি শ্রমিকের কাজের বাৎসরিক বেতন নির্ধারণ করে দিয়েছে কাজের ধরন এবং কাজের পরিমাণের উপরে ভিত্তি করে বেতনের পরিমাণ ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। মাল্টা সরকারের নির্ধারিত বেতনের লিস্ট নিচে দেওয়া হলো।

  • একজন রেস্টুরেন্ট ওয়েটারের বেতন হচ্ছে ৮০ হাজার টাকা থেকে ৯০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন ক্লিনারের বেতন হচ্ছে ৭৫ হাজার টাকা থেকে ৮৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন গার্মেন্টস শ্রমিকের বেতন হচ্ছে ৬৫ হাজার টাকা থেকে ৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন ডেলিভারি ম্যানের বেতন হচ্ছে ৯০ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন ড্রাইভার এর বেতন হচ্ছে ৯০ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন কনস্ট্রাকশন ওয়ার্কারের বেতন হচ্ছে ৮০ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।
  • একজন ইলেকট্রিশিয়ানের বেতন হচ্ছে ১ লক্ষ টাকা থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন রাধুনীর বেতন হচ্ছে ১ লক্ষ টাকা থেকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
  • একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বেতন হচ্ছে ১ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা থেকে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত।

সর্বশেষ কথাঃ

ইউরোপের ছোট্ট একটি দেশ মাল্টা কিন্তু ইউরোপের অন্যতম সৌন্দর্যপূর্ণ দেশ হচ্ছে মাল্টা প্রতিবছর ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রচুর পরিমাণ টুরিস্ট মাল্টা বেড়াতে আসে তাই এই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থাও ভালো। তাছাড়া বাংলাদেশ থেকে মাল্টা যাওয়া ইউরোপের অন্য দেশ থেকে সহজ তাই অবশ্যই আপনারা ইউরোপ যেতে চাইলে মাল্টা যেতে পারেন।

Leave a Comment