কানাডা ভিসার দাম কত টাকা ২০২৪

কানাডা ভিসার দাম কত টাকা ২০২৪, উত্তর আমেরিকা মহাদেশ অবস্থিত হচ্ছে কানাডা। বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিয়ত অনেক লোক উন্নত জীবন যাপনের জন্য কানাডায় যাচ্ছে। অনেকেই আছেন যারা কাজের উদ্দেশ্যে বা ভ্রমণের উদ্দেশ্যে কানাডা যেতে চাচ্ছেন বা যাবেন। আবার কিছু কিছু শিক্ষার্থী রয়েছে যারা উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য বাংলাদেশ থেকে কানাডায় স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে যাবার কথা ভাবছেন।

কিন্তু আপনারা বর্তমানে অনেকেই জানেন না কানাডা ভিসার দাম কত টাকা এবং কানাডা যেতে কত টাকা খরচ হবে সেই সম্পর্কে। মূলত কানাডা যাওয়ার জন্য ভিসার ক্যাটাগরির উপর নির্ভর করবে আপনার কত টাকা খরচ হবে। বর্তমান কানাডায় বেশ কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ভিসা পাওয়া যায়। আপনারা খুব সহজেই বাংলাদেশ থেকে যেকোনো একটি এজেন্সির মাধ্যমে কানাডায় ভিসার আবেদন করতে পারবেন। আজকের পোষ্টের মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন কানাডা ভিসার দাম কত টাকা সেই সম্পর্কে।

Table of Contents

কানাডা ভিসার দাম কত টাকা

কানাডা ভিসার দাম কত টাকা, বাংলাদেশ থেকে অনেকে বিভিন্ন উদ্দেশ্যে কানাডার ভিসা করে থাকেন। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণের জন্য কানাডা যেতে চান তাহলে আপনাকে টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। এবং অনেকেই আছেন আপনারা বাংলাদেশ থেকে কাজের উদ্দেশ্যে কানাডায় যেতে চান তাদেরকে কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসার আবেদন করতে হবে। আবার কিছু মানুষ আছে যারা উচ্চ শিক্ষার জন্য কানাডায় যেতে চান তাদেরকে স্টুডেন্ট ভিসার আবেদন করতে হবে। তাই আপনার আবার বর্তমানে যে ক্যাটাগরির ভিসাতে যাবেন তার জন্য আলাদা আলাদা খরচ করতে হবে। আপনি যদি বর্তমানে কানাডার একটি ভিসা করতে চান সর্বনিম্ন আপনার ৫ লক্ষ টাকা লাগবে এবং সর্বোচ্চ ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ হবে। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন কানাডা ভিসার দাম কত টাকা লাগে সেই সম্পর্কে।

কানাডা ভিসার দাম কত টাকা

কানাডা ভিসা ক্যাটাগরি

আপনারা যারা কানাডার ভিসা সম্পর্ক তথ্য খোঁজ করিতেছেন তারা খুব সহজেই জানতে পারবেন কানাডায় কোন কোন ক্যাটাগরির ভিসা বাংলাদেশিদের জন্য প্রযোজ্য। বর্তমানে কানাডায় বিভিন্ন প্রকার ভিসা চালু রয়েছে তাই আপনারা চাইলে যেকোনো একটি ক্যাটাগরিতে ভিসার জন্য আবেদন করে খুব সহজেই কানাডা যেতে পারবেন। তাহলে দেখে নেওয়া যাক বর্তমানে কোন কোন ক্যাটাগরির ভিসা বাংলাদেশীদের জন্য চালু আছে।

  • ওয়ার্ক পারমিট ভিসা।
  • জব ভিসা।
  • স্টুডেন্ট ভিসা।
  • শ্রমিক ভিসা।
  • লেবার ভিসা।
  • কৃষি ভিসা।
  • মেকানিক্যাল ভিসা।
  • বিজনেস ভিসা।
  • ড্রাইভিং ভিসা।
  • চিকিৎসা ভিসা। 
  • ফ্রি ভিসা।

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা

বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে কানাডার জন্য ওয়ার্ক পারমিট ভিসা চালু রয়েছে। আপনি চাইলে বাংলাদেশ থেকে যে কোন ভালো এজেন্সি বা ভালো দালালের মাধ্যমে কানাডার ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। অতীতের তুলনায় বর্তমানে কানাডার ওয়ার্ক পারমিট ভিসার দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই আপনি যদি কোন এজেন্সির মাধ্যমে ভিসা করতে চান তাহলে আপনার খরচ হবে ১২ লক্ষ টাকা থেকে ১৪ লক্ষ টাকার মধ্যে। আর আপনি যদি সরকারি কোনো এজেন্সির মাধ্যমে কানাডায় যেতে চান তাহলে খরচ হবে ৫ লক্ষ টাকা থেকে ৮ লক্ষ টাকা।

আরও দেখুনঃ কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা এবং খরচ কত

কানাডা জব ভিসা

প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কানাডার বিভিন্ন কোম্পানি দক্ষ শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে থাকে। তাই আপনারা সরকারিভাবে জব ভিসার জন্য কানাডায় আবেদন করতে পারেন। আপনি যদি সরকারি ভাবে কানাডার জন্য ভিসা আবেদন করেন তাহলে আপনার খরচ কম হবে। এবং আপনি খুব কম খরচেই বাংলাদেশ থেকে কানাডায় যেতে পারবেন। বর্তমানে আপনি যদি সরকারি ভাবে কানাডায় যেতে চান তাহলে সর্বনিম্ন খরচ হবে পাঁচ লক্ষ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৮ লক্ষ টাকা।

কানাডা শ্রমিক ভিসা

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কানাডায় শ্রমিক ভিসায় যান তাহলে আপনি অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কারণ বর্তমানে ইসলামিক ভিসার অনেক চাহিদা রয়েছে এবং কানাডায় প্রচুর পরিমাণ কাজ পাওয়া যাচ্ছে শ্রমিক ভিসায়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিবছর শ্রমিক ভিসা কানাডা লোক নিয়ে থাকে। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কোন এজেন্সি বা দালালের মাধ্যমে শ্রমিক ভিসা করে কানাডা জান তাহলে আপনার খরচ পড়বে ৮ লক্ষ টাকা থেকে ৯ লক্ষ টাকার মধ্যে। আর যদি আপনি সরকারিভাবে যান তাহলে আপনার খরচ কিছুটা কম হবে।

কানাডা স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে কত টাকা লাগে

বর্তমানে অনেক শিক্ষার্থী রয়েছে যারা বাংলাদেশ থেকে কানাডায় উচ্চশিক্ষার জন্য যেয়ে থাকে এবং তারা কানাডার স্টুডেন্ট ভিসার জন্য আবেদন করেন। আপনি যদি কানাডার স্কলারশিপ পেয়ে যান তাহলে আপনার স্টুডেন্ট ভিসার জন্য খরচ কম হবে। আর আপনি যদি বেসরকারিভাবে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে চান তাহলে আপনার স্টুডেন্ট ভিসার খরচ বেশি হবে। বর্তমানে কোন এজেন্সির মাধ্যমে কানাডার স্টুডেন্ট ভিসা করতে চাইলে আপনার খরচ হবে ৪ লক্ষ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা।

কানাডা যাওয়ার যোগ্যতা

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কানাডায় যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার কিছু যোগ্যতা থাকতে হবে না হলে আপনি কানাডায় যেতে পারবেন না। আপনার যদি সেই সকল যোগ্যতা থাকে তাহলে শুধুমাত্র কানাডার ভিসার আবেদন করতে পারবেন। তাহলে আমরা দেখে নেই বর্তমানে কানাডার ভিসার আবেদন করতে হলে কি কি যোগ্যতা প্রয়োজন।

  • বৈধ ৬ মাস মেয়াদ পাসপোর্ট।
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি।
  • ৪ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি।
  • স্টুডেন্ট ভিসার জন্য IELTS পরিক্ষার সর্বোনিম্ন স্কোর ৬। 
  • ব্যাংক স্টেটমেন্ট এর ফটোকপি।
  • ভিসার আবেদন ফরম।
  • করোনার ভ্যাকসিন এর সনদপত্র।
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সনদ পত্র।

কানাডা যেতে কত বয়স লাগে

কানাডা যেতে কত বয়স লাগে সেটি নির্ভর করবে আপনি কোন ক্যাটাগরির ভিসাতে যাচ্ছেন। কারণ আপনি যদি টুরিস্ট ভিসায় যান কানাডায় তাহলে আপনার বয়সের কোন বাধ্যবাধকতা নেই। আর আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসা যান তাহলে অবশ্যই আপনার সর্বনিম্ন বয়স হতে হবে ১৮। এবং আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে কানাডায় যেতে চান তাহলে সর্বনিম্ন ২২ বছর থেকে সর্বোচ্চ ৪০ বছর পর্যন্ত বয়স লাগে। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন কোন ক্যাটাগরির ভিসাতে কত বয়স লাগে।

বাংলাদেশ থেকে কানাডার দূরত্ব

আপনারা জানেন যে বর্তমানে কানাডাতে এক লক্ষ বেশি বাংলাদেশি বসবাস করছেন। তাই অনেকেই জানতে চায় বাংলাদেশ থেকে কানাডার দূরত্ব কত কিলোমিটার। আপনি যদি বিমান পথে বাংলাদেশ থেকে কানাডার দূরত্ব পরিমাপ করেন তাহলে দূরত্ব হচ্ছে ১০,৯৯৪ কিলোমিটার। আপনি যদি মাইল হিসাব করেন তাহলে প্রায় ৬,৫৬২মাইল হবে।

বাংলাদেশ থেকে কানাডা যেতে কত সময় লাগে

বাংলাদেশ থেকে কানাডার উদ্দেশ্যে বেশ কিছু এয়ারলাইন্স কোম্পানির বিমান চলাচল করে কিন্তু এই সকল এয়ারলাইন্স কোম্পানি সরাসরি বিমান পরিচালনা করে না কারণ বাংলাদেশ থেকে ১০,৯৯৪ কিলোমিটার দূরত্ব। তাই বাংলাদেশ থেকে যে সকল এয়ারলাইন্স কোম্পানির বিমান চলাচল করে তারা মধ্যপ্রাচ্যের যেকোনো একটি দেশে স্টপেজ দিয়ে এরপরে কানাডার উদ্দেশ্যে চলাচল করে। তাই বাংলাদেশ থেকে কানাডা যেতে ২৪ থেকে ২৮ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগে।

সর্বশেষ কথাঃ

আপনারা যারা কানাডা ভিসার দাম কত টাকা সে বিষয়ে খোঁজ করিতেছেন তারা অবশ্যই আমার এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকলে জানতে পেরেছেন কানাডা ভিসার দাম কত টাকা সেই সম্পর্কে। আপনারা যারা আরও বিভিন্ন দেশের তথ্য জানতে চান তারা অবশ্যই আমার ওয়েবসাইটের সাথেই থাকবেন আমার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের তথ্য প্রকাশ করা হবে।

Leave a Comment