লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম ২০২৪

লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম ২০২৪, ইউরোপ মহাদেশের ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত একটি রাষ্ট্র হচ্ছে লিথুনিয়া। সাম্প্রতিক সময়ে লিথুনিয়া থেকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশিদের ভিসা প্রদান করছে। আমরা সকলে জানি যে বর্তমানে বাংলাদেশের প্রতিবছর প্রচুর পরিমাণ শিক্ষিত বেকার বসবাস করে। তাই এই সকল শিক্ষিত বেকার উন্নত জীবন এবং বেকারত্ব দূর করার জন্য ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমায়। কারণ প্রতিটি শিক্ষিত বেকারের পছন্দের তালিকায় শীর্ষ ইউরোপের যেকোনো একটি দেশ।

লিথুনিয়া হচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত একটি সুন্দর এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরা একটি রাষ্ট্র। লিথুনিয়ায় অন্য সকল ইউরোপের দেশের থেকে সুযোগ-সুবিধা একটু বেশি। এবং লিথুনিয়া সরকার সেই দেশের প্রতিটি কাজের জন্য একটি সর্বনিম্ন বেতন কাঠামো রেখেছে যার মাধ্যমে যে কোন একটি কাজে সর্বনিম্ন বেতন নির্ধারিত আছে।

অপরদিকে লিথুনিয়াতে সর্বনিম্ন একটি বেতন কাঠামোর জন্য অন্য দেশের তুলনায় সুযোগ-সুবিধা একটু বেশি। যেহেতু সম্প্রতি লিথুনিয়া যাওয়ার ভিসা চালু হয়েছে তাই লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম খুঁজে বেড়াচ্ছে অনেকেই। তাই আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের সাথে আলোচনা করব লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম সম্পর্কে অতএব আপনারা যারা লিথুনিয়া যেতে চাচ্ছেন তারা অবশ্যই আমার এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে লিথুনিয়া যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সর্বপ্রথম বাংলাদেশে অবস্থিতি লিথুনিয়া এম্বাসির সাথে যোগাযোগ করতে হবে। অন্য কোনভাবেই আপনি এম্বাসি ব্যতীত লিথুনিয়া পৌঁছাতে পারবেন না। শুধুমাত্র আপনি নির্দিষ্ট উপায়ে লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম পূরণ করে লিথুনিয়া এম্বাসির মাধ্যমে সেই দেশে পৌঁছাতে পারবেন।

সর্বপ্রথম আপনাকে সার্চ অপশনে lithuania visa application লিখে সার্চ করলেই আপনি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট পেয়ে যাবেন। এবং এরপরে আপনাকে ভিসার আবেদনের কপি সহ বৈধ পাসপোর্ট এবং ভিসার ফ্রি সহ লিথুনিয়া এম্বাসিতে জমা দিতে হবে। আপনি যদি ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য প্রযোজ্য হন তাহলে আপনাকে লিথুনিয়া সরকার ওয়ার্ক পারমিট ভিসা দিবে।

লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম

লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা

বাংলাদেশ থেকে বেশিরভাগ শিক্ষিত যুবকরা কাজের উদ্দেশ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমিয়ে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ থেকে  লিথুনিয়া যাওয়ার জন্য বেশ কিছু ওয়ার্ক পারমিট ভিসা চালু করেছে সেই দেশের সরকার। কাজের দক্ষতার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ শ্রমিক নিচ্ছে লিথুনিয়া সরকার। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে চারটি ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশিদের জন্য ওয়ার্ক পারমিট ভিসা চালু রেখেছে নিম্নে এই চারটি ভিসার তালিকা দেওয়া হলো। লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম

  1. সাধারণ কর্মীদের জন্য =  ওয়ার্ক পারমিট ভিসা।
  2. অভিজ্ঞ কর্মীদের জন্য = EU Blue Card.
  3. সিজনাল = নরমাল কাজের ভিসা।
  4. ইন্ট্রা = কোম্পানির ভিসা।

লিথুনিয়া এম্বাসি বাংলাদেশ

আপনারা অনেকেই ইন্টারনেটে খোঁজ করে থাকেন বাংলাদেশে কি লিথুনিয়া এম্বাসি রয়েছে? বর্তমানে বাংলাদেশে লিথুনিয়ার অফিশিয়াল কোন এম্বাসি চালু নেই। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে লিথুনিয়া যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ঢাকায় লিথুনিয়া কনস্যুলেট অফিসে যোগাযোগ করতে হবে। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী আপনি ভিসা আবেদন করে লিথুনিয়া যাওয়ার সুযোগ পেতে পারেন। লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম

  • Lithuanian Consulate in Dhaka = 822/3 Begum Rokeya Sharani Mirpur, Dhaka 1216.
    Phone: +8801871001399, 88029023757

লিথুনিয়ার কাজের বেতন কত

আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে লিথুনিয়া যাবেন তাদের অনেকের মনে প্রশ্ন জেগে থাকে বর্তমানে লিথুনিয়ার কাজের বেতন কত টাকা? আপনারা যারা কাজের উদ্দেশ্যে লিথুনিয়াতে যাবেন তারা জেনে খুশি হবেন যে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত সকল দেশেই একটি সর্বনিম্ন বেতন কাঠামো রয়েছে যে কাঠামোর মাধ্যমে আপনারা সর্বনিম্ন একটি বেতন পাবেন।  বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ থেকে আপনারা যারা লিথিলিয়াম যাবেন তাদের সর্বনিম্ন বেতন হবে ৬০০ ইউরো থেকে ৭০০ ইউরো পর্যন্ত যা বাংলাদেশি টাকায় ৭০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা।

সাধারণত একজন নরমাল শ্রমিক লিথুনিয়াতে প্রতিদিন সর্বনিম্ন ৮ থেকে ১০ ঘন্টা কাজ করে থাকে। আপনি যদি ৮ থেকে ১০ ঘন্টা প্রতিদিন কাজ করেন তাহলে মাস শেষে আপনি ৬০০ ইউরো থেকে ৭০০ ইউরো পর্যন্ত উপার্জন করতে পারবেন। তবে কোন শ্রমিক যদি অতিরিক্ত টাকা ইনকাম করতে চায় তাহলে অবশ্যই তাকে নির্দিষ্ট কাজের বাহিরে ওভারটাইম করতে হবে সে ক্ষেত্রে মাসে আরো ১০০ থেকে ২০০  ইউরো পর্যন্ত অতিরিক্ত ইনকাম করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ লিথুনিয়া ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা

সর্বশেষ কথা

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে লিথুনিয়া যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে সর্বপ্রথম লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। এরপরেও পূরণকৃত ফরমটি লিথুনিয়া এম্বাসিতে জমা দিতে হবে জমা দেওয়ার পরে আপনার ভিসার প্রক্রিয়া শুরু হবে। আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা জানতে পারলাম লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম পূরণ করার সকল তথ্য। আপনারা যদি এরকম আরো পোস্ট পেতে চান তাহলে অবশ্যই আমার এই ওয়েবসাইটের সাথেই থাকবেন আমি আপনাদের জন্য এরকম আরো পোস্ট নিয়ে হাজির হবো।

5 thoughts on “লিথুনিয়া ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন ফরম ২০২৪”

Leave a Comment