চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪

5/5 - (1 vote)

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া ২০২৪, বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হচ্ছে বন্দর নগরী চট্টগ্রাম। প্রতিদিন অসংখ্য ট্রেন যাত্রী চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে চলাচল করে। বর্তমানে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার ট্রেন লাইনের দূরত্ব হচ্ছে ৩৫০ কিলোমিটার এই দূরত্বের কারণে বেশিরভাগ মানুষের ট্রেনে ভ্রমন করতে চায়।

অনেক যাত্রী আছে যারা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া জানেন না! তাই আপনারা যারা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া জানতে চাচ্ছেন তারা অবশ্যই আমার এই আর্টিকেলটি পড়বেন কারণ আমার এই আর্টিকালের মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই জানতে পারবেন চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচি এবং ভাড়া এর সমস্ত তথ্য।

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা একটি ব্যস্ততম ট্রেন লাইন প্রতিদিন চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে তিনটি আন্তঃনগর এবং দুটি ননস্টপ আন্তঃনগর  এবং তিনটি মেইল এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল করে। তাই আপনারা যারা আন্তঃনগর এক্সপ্রেস এবং মেইল এক্সপ্রেস এর সময়সূচি এবং ভাড়ার তালিকা জানতে চাচ্ছেন তারা সঠিক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করেছেন।

আমার এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করব চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া। যে সময়সূচী অনুযায়ী আপনারা আন্তঃনগর এক্সপ্রেস এবং মেইল এক্সপ্রেস এর সকল তথ্য জানতে পারবেন। চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে আন্তঃনগর ট্রেনগুলো কখন ছেড়ে যায় এবং মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনগুলো কখন ছেড়ে যায় আমার এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে সেই বিষয়গুলো জানতে পারবেন। এবং আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেন গুলোর ভাড়া কত এবং মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া কত সেই সকল বিষয়ে জানতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ ঢাকা টু চট্টগ্রাম ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়ার তালিকা

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে দুটি আন্তঃনগর ননস্টপ ট্রেন চলাচল করে ট্রেনগুলো হচ্ছে  সুবর্ণা এক্সপ্রেস (৭০১) এবং সোনার বাংলা এক্সপ্রেস (৭৮৭) এবং চট্টগ্রাম থেকে যাত্রীদের আন্তঃনগর সেবা দেওয়ার জন্য তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করে যে ট্রেনগুলো হচ্ছে মহানগর প্রভাতী (৭০৩), মহানগর এক্সপ্রেস (৭২১), তূর্ণা এক্সপ্রেস (৭৪১)।

এবং বাংলাদেশ সরকার থেকে যাত্রীদের কম খরচে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য তিনটি মেইল ট্রেন সার্ভিসে রেখেছে সেই ট্রেনগুলোর নাম হচ্ছে ঢাকা মেইল (০১), কর্ণফুলী (০৩) এবং চট্টাল এক্সপ্রেস (৬৭) । এই আন্তঃনগর এবং মেইল ট্রেন গুলোর সময়সূচি বিভিন্ন রকম তাই এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই জানতে পারবেন চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী।

ট্রেনের নামট্রেন ছাড়ার সময়ট্রেন পৌঁছানোর সময়ছুটির দিন
সুবর্ণা এক্সপ্রেস (701)07:00 AM12:10 PMসোমবার
মহানগর প্রভাতী (703)03:00 PM09:25 PMনাই
মহানগর এক্সপ্রেস (721)12:30 PM07:10 PMরবিবার
তূর্ণা এক্সপ্রেস (741)11:00 PM05:15 AMনাই
সোনার বাংলা এক্সপ্রেস (787)05:00 PM10:10 PMমঙ্গলবার

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা মেইল ট্রেনের সময়সূচী

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে প্রতিদিন তিনটি মেইল এক্সপ্রেস চলাচল করে। আপনারা চাইলেই খুব সহজে এই মেইল ট্রেন গুলোতে চলাচল করতে পারবেন কারণ এই মেইল ট্রেনগুলোতে খুব কম খরচে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা যেতে পারবেন। আপনারা যারা মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনগুলোর সময়সূচী জানেন না তারা আমার এই আর্টিকেল থেকে সময়সূচি দেখে নিন।

ট্রেনের নামট্রেন ছাড়ার সময়ট্রেন পৌঁছানোর সময়ছুটির দিন
ঢাকা মেইল (01)10:30 PM06:55 AMনাই
কর্ণফুলী (03)10:00 AM07:45 PMনাই
চট্টাল এক্সপ্রেস (67)08:30 AM03:50 PMমঙ্গলবার

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের ভাড়া

আপনারা যারা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের ভাড়া জানতে চাচ্ছেন তারা একটি বিষয় অবগত থাকবেন চট্টগ্রামে থেকে বর্তমানে দুটি আন্তঃনগর নন স্টপ এবং তিনটি আন্তঃনগর এক্সপ্রেস এবং তিনটি মেইল এক্সপ্রেস চলাচল করে। তাই বাংলাদেশ সরকার রেল মন্ত্রণালয় থেকে ট্রেনের জন্য বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ভাড়া নির্ধারণ করেছে। তাই আপনারা যারা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের ভাড়া জানতে চাচ্ছেন তারা নিচের লিস্ট অনুযায়ী ভাড়াটি দেখে নিন।

ট্রেনের আসনটিকিটের মূল্য
শোভন২৮৫ টাকা
শোভন চেয়ার৩৪৫ টাকা
প্রথম আসন৫২৯ টাকা
প্রথম ব্যর্থ৬৪৫ টাকা
স্নিগ্ধা৬৫৬ টাকা
এসি৭৮৮ টাকা
এসি ব্যর্থ১১৭৯ টাকা

যাত্রীদের উদ্দেশ্যে কিছু কথা

আমার এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের সবাইকে জানানোর চেষ্টা করছি চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া কত? যদি আমার এই আর্টিকেল পড়ে আপনারা উপকৃত হোন তাহলে অবশ্যই আপনারা আমার এই পোস্টটি শেয়ার করবেন। যাত্রীদের উদ্দেশ্যে কিছু কথা আপনারা অবশ্যই বাংলাদেশ রেলের আইন মেনে চলবেন।

ট্রেনে চলাচল করার সময় কখনোই অবৈধ এবং নিষিদ্ধ জিনিস নিয়ে চলাচল করবেন না। বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রতিটি জিনিস আমাদের সম্পদ তাই সঠিকভাবে আমাদের সম্পদ ব্যবহার করতে হবে। কখনোই বাংলাদেশ রেলের কোন জিনিসের ক্ষতি করবেন না।

Leave a Comment