মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য ২০২৪

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য ২০২৪, আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে মালয়েশিয়া যেতে চান তাহলে আপনার মনে প্রশ্ন থাকতে পারে মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা? তাহলে আসুন আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করি মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা সেই সম্পর্কে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি দেশ হচ্ছে মালয়েশিয়া। এশিয়ার মধ্যে অন্যতম উন্নত এবং সমৃদ্ধশীল দেশ হলো মালয়েশিয়া।মালয়েশিয়াতে যে সমস্ত শ্রমিক প্রবাসী আছে তার মধ্যে বেশিরভাগ লোকই বাংলাদেশ। তাই বাংলাদেশ থেকে অনেক মানুষ প্রতিনিয়ত কাজের উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়া যাচ্ছে। আপনারা জানেন যে বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়াতে ভিসা চালু আছে।

বাংলাদেশ থেকে বর্তমানে বিভিন্ন ভিসাতে মালয়েশিয়া যাওয়া যাচ্ছে তাই যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যেতে চাচ্ছে তারা অনেকেই জানতে চায় মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা সেই বিষয়ে। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যান তাহলে আপনার বেতন নির্ধারিত হবে আপনার কাজের উপরে। তাই কোন কাজের কত টাকা বেতন সেই সম্পর্কে জানতে অবশ্যই আমার মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত আর্টিকেলটি পড়তে হবে।

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য, বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে যেকোন দেশে যাওয়ার আগে অবশ্যই সেই দেশের বেতন কত টাকা এই বিষয়ে আমরা সর্বপ্রথম জানার চেষ্টা করি। তাই আমরা যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া কাজের উদ্দেশ্যে যাই তারা অবশ্যই জানার চেষ্টা করে মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা।

আপনারা ইতিমধ্যে জানেন যে মালয়েশিয়ান সরকার প্রতিটি বাংলাদেশী শ্রমিকের জন্য একটি বেতন স্কেল ঘোষণা করেছে সেই স্কেল অনুযায়ী একটি শ্রমিক সর্বনিম্ন ১২০০ রিংগিত বেতন পাবে। যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ২৮ হাজার টাকার মত। তাই বলা যায় একজন শ্রমিক মালয়েশিয়াতে সর্বনিম্ন ১২০০ রিংগিত থেকে শুরু করে কাজের ধরন এবং দক্ষতার উপর কমবেশি মালয়েশিয়াতে বেতন পাবেন।

বর্তমানে মালয়েশিয়াতে বিভিন্ন প্রকার কাজে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ দিচ্ছে তা আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যাবেন তারা নিম্নে লিখিত বিভিন্ন কাজের বিস্তারিত আলোচনা পড়তে পারেন। তাহলে আপনারা জানতে পারবেন বর্তমানে মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা সেই সম্পর্কে।

মালয়েশিয়া ইলেকট্রিক কাজের বেতন কত

আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া ইলেকট্রিক্যাল কাজে যেতে চাচ্ছেন তাদের সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে ১৮০০ রিংগিত থেকে ২২০০ রিংগিত পর্যন্ত। যা বাংলাদেশী টাকায় ৪০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পাওয়া যায়।

তবে উচ্চ পদের দক্ষ ইলেকট্রিশিয়ান দের বেতন ৩০০০-৫০০০ রিংগিত পর্যন্ত হয়ে থাকে। মালয়েশিয়াতে ইলেকট্রিক্যাল কাজের বেতন সাধারণত বেশি হয়ে থাকে কারণ ইলেকট্রিক্যাল কাজটি অনেক দক্ষতা সম্পন্ন কাজ তাই এই কাজের বেতন একটু বেশি।

আপনি যদি ইলেকট্রিক্যাল কাজের দক্ষতা অর্জন করতে চান তাহলে বাংলাদেশে প্রতিটি জেলায় টিটিসি থেকে  তিন মাস বা ছয় মাস মেয়াদী ইলেকট্রিক্যাল কাজের কোর্স কমপ্লিট করে এ কাজের দক্ষতা অর্জন করতে পারেন।

মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত

মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের বেতন কত

বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে যে সকল শ্রমিক মালয়েশিয়া যাচ্ছেন তাদের বেশির ভাগ শ্রমিক কনস্টেশনের কাজে যাচ্ছেন। মালয়েশিয়ান সরকার বাংলাদেশী কনস্ট্রাকশন শ্রমিকদের জন্য একটি বেতন নির্ধারণ করেছে। বর্তমানে একজন বাংলাদেশী কনস্ট্রাকশনের শ্রমিকের বেতন সর্বনিম্ন ১৮০০ রিংগিত এবং সর্বোচ্চ ২৫০০ রিংগিত পর্যন্ত। বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৪০,০০০ হাজার থেকে ৫৮,০০০ হাজার টাকা।

যদি এই কাজে একজন দক্ষতা সম্পন্ন শ্রমিক বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যায় তাহলে সেই একটি শ্রমিকের বেতন হবে ২৫০০ রিংগিত থেকে ৩০০০ রিংগিত পর্যন্ত।  তাই আপনারা যারা মালয়েশিয়া যাবেন তারা অবশ্যই কনস্টেশন কাজে দক্ষতা অর্জন করে মালয়েশিয়া যাবেন।

মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত

বর্তমানে মালয়েশিয়ান সরকার সেদেশের ফ্যাক্টরির জন্য শ্রমিকদের সর্বনিম্ন বেতন ঘোষণা করেছে ১৮০০ রিংগিত। তাই বাংলাদেশি একজন শ্রমিক যদি মালয়েশিয়ার ফ্যাক্টরির কাজে যায় তাহলে তার সর্বনিম্ন বেতন হবে ১৮০০ ইঙ্গিত এবং সর্বোচ্চ ২৫০০ রিংগিত পর্যন্ত বেতন হতে পারে। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৪০ হাজার টাকা থেকে ৫৫ হাজার টাকা পর্যন্ত এছাড়াও আপনার ওভারটাইমের সুযোগ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি আরো বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। worker 38

মালয়েশিয়া ড্রাইভিং বেতন কত

যারা বাংলাদেশ থেকে ড্রাইভিং বিষয় নিয়ে মালয়েশিয়াতে যাচ্ছে তারা অনেকেই জানেনা মালয়েশিয়া ড্রাইভিং বেতন কত টাকা? বর্তমানে আপনারা যারা মালয়েশিয়ায় ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে যাচ্ছেন তাদের সর্বনিম্ন বেতন হবে ৩ হাজার রিংগিত যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত। তাই আপনারা অবশ্যই দক্ষ ড্রাইভার হয়ে মালয়েশিয়াতে প্রবেশ করুন। image 58968 1528726210

মালয়েশিয়া কৃষি কাজের বেতন কত

বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে যারা কৃষি ভিসা নিয়ে মালয়েশিয়াতে প্রবেশ করছেন তাদের সর্বনিম্ন একটি বেতন নির্ধারণ করে দিয়েছে মালয়েশিয়ান সরকার। যারা মালয়েশিয়াতে কৃষি ভিসা নিয়ে যাবেন তাদের সর্বনিম্ন ভালো ১২০০ রিংগিত থেকে শুরু করে ১৮০০ রিংগিত পর্যন্ত বেতন হয়ে থাকে। যা বাংলাদেশী টাকায় ২৫ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন।

এছাড়াও আপনি যদি দীর্ঘদিন কৃষিকাজের সাথে সম্পৃক্ত থাকেন তাহলে আপনার বেতন আস্তে আস্তে বৃদ্ধি পাবে এবং এক সময় দেখবেন আপনি প্রতিমাসে ১ লাখ টাকা থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারছেন তাই আপনারা যারা বাংলাদেশে বেকার বসে আছেন তারা অবশ্যই পাসপোর্ট করে মালয়েশিয়া চলে যান।

মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট বেতন কত

মালয়েশিয়াতে সাধারণত সুপার মার্কেটের শিক্ষিত এবং সুদর্শন ব্যক্তিকে নিয়োগ দিয়ে থাকে। তাই বাংলাদেশ থেকে আপনারা যারা মালেশিয়ার সুপারমার্কেটে যেতে চাচ্ছেন তারা অনেকেই জানেন না মালয়েশিয়ার সুপার মার্কেটের বেতন কত? বর্তমানে মালয়েশিয়া সুপার মার্কেটে একজন কর্মীর সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে ২২০০ রিংগিত থেকে শুরু করে ২৮০০ রিংগিত পর্যন্ত। যা বর্তমান বাংলাদেশি টাকায় ৫০ হাজার টাকা থেকে ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত।

মালয়েশিয়া পাম বাগানে বেতন কত

মালয়েশিয়া বিশ্বের অন্যতম পাম তেল উৎপাদনকারী একটি দেশ তাই সে দেশে প্রচুর পরিমাণ পান বাগান রয়েছে। তাই বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণ শ্রমিক পাম বাগানে কাজ করার জন্য যেয়ে থাকে কিন্তু অনেকেই জানেন না মালয়েশিয়া পাম বাগানের বেতন কত টাকা? বর্তমানে মালয়েশিয়া পাম বাগানে সর্বনিম্ন বেতন হচ্ছে ১৮০০ রিংগিত কিন্তু আপনি যদি পাম বাগানে চুক্তিতে কাজ করেন তাহলে প্রতি মাসে ৩০০০ থেকে ৪০০০ রিংগিত পর্যন্ত বেতন উঠাতে পারবেন। মালয়েশিয়া পাম বাগানের বেতনের নির্দিষ্ট কোন সীমা নেই যে যত কাজ করবে তার তত বেতন।

মালয়েশিয়া হোটেল ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া উন্নত রাষ্ট্র হওয়ার কারণে সে দেশে প্রচুর পরিমাণ হোটেল রয়েছে। তাই হোটেলে বিভিন্ন সার্ভিস দেওয়ার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে লোক নিয়োগ করে থাকে মালয়েশিয়া সরকার। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকেও বেশ কিছু লোক মালয়েশিয়া হোটেল ভিসাতে যাচ্ছে। কিন্তু বাংলাদেশ থেকে যারা যাচ্ছে তারা কিন্তু জানে না মালয়েশিয়া হোটেল ভিসা বেতন কত? আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া হোটেলের সাথে চান তাহলে আপনার সর্বনিম্ন বেতন হবে ১৮০০ রিংগিত এবং আপনি যদি ওভারটাইম করেন তাহলে আরো ৪০০ থেকে ৬০০ ইনকাম করতে পারবেন। অর্থাৎ প্রতি মাসে আপনি ২২০০ রিংগিত থেকে ২৪০০ রিংগিত পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন।

মালয়েশিয়া রেস্টুরেন্ট ভিসা বেতন কত

বর্তমানে মালয়েশিয়া যতগুলো কাজের ভিসা চালু রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে রেস্টুরেন্টের ভিসার কাজ সহজ। তাই বাংলাদেশ থেকে অনেকেই মালয়েশিয়ার রেস্টুরেন্ট ভিসায় যেতে চায়। রেস্টুরেন্ট ভিসা বেতন কম হলেও মালয়েশিয়াতে রেস্টুরেন্টের কাজে প্রচুর পরিমাণ ইনকাম করা যায়। কারণ আপনি যদি রেস্টুরেন্টের কাজ করেন তাহলে প্রচুর পরিমাণ টিপস পাবেন। বর্তমানে রেস্টুরেন্ট ভিসার বেতন হচ্ছে ১৫০০ রিংগিত। আপনি যদি মূল ডিউটির পাশাপাশি ওভারটাইম করেন তাহলে আরো ২০০ থেকে ৩০০ রিংগিত ইনকাম করতে পারবেন। আপনার বেতন এবং টিপস দিয়ে প্রতি মাসে প্রায় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত খুব সহজেই ইনকাম করতে পারবেন।

কত বছর বয়স হলে মালয়েশিয়া যাওয়া যায়

অনেকেই নতুন পাসপোর্ট করেছে কিন্তু তারা জানে না কত বছর বয়স হলে মালয়েশিয়া যাওয়া যায়? তাই আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করব কত বছর বয়স হলে মালয়েশিয়া যাওয়া যায়। আপনার যদি বয়স পাসপোর্ট এর সর্বনিম্ন ২১ বছর হয়ে থাকে তাহলে আপনি মালয়েশিয়াতে ভিসা লাগাতে পারেন এবং আপনার যদি ৩৮ বছরের উপরে হয় তাহলে আপনি ভিসা লাগাতে পারবেন না। অর্থাৎ আপনার ২১ থেকে ৩৮ বছর পর্যন্ত মালয়েশিয়াতে ভিসা পাওয়ার। মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য।

আরও পড়ুনঃ মালয়েশিয়া কোন কাজের বেতন বেশি

সর্বশেষ কথাঃ

আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য। আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যাবেন তারা অবশ্যই এজেন্ট এবং এম্বাসির সাথে মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত টাকা সেই সম্পর্কে আলোচনা করে যাবেন তাহলে আরো ভালো হবে। তাই আপনারা অবশ্যই সঠিক তথ্য যাচাই বাছাই করে মালয়েশিয়া তে যাওয়ার চেষ্টা করবেন। যদি আজকের মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত তার বিস্তারিত সকল তথ্য এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনারা শেয়ার করবেন এবং প্রতিদিন আমার ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

Leave a Comment