মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া ২০২৪

মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া, প্রতিদিন বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া এবং মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে অনেকগুলো ফ্লাট পরিচালনা হয়ে থাকে। তাই আপনারা যারা মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে আসতে চান তাদের অবশ্যই বিমানের মাধ্যমে আসতে হবে। বর্তমানে মালয়েশিয়াতে প্রচুর পরিমাণ বাংলাদেশি প্রবাসী রয়েছে যারা বিভিন্ন সময় ছুটি এবং বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশে এসে থাকে। তাই বাংলাদেশের প্রবাসীরা জানতে চায় মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া কত টাকা?

আপনি যে স্থান থেকে ভ্রমণের পরিকল্পনা করুন না কেন অবশ্যই আপনাকে সেই স্থান থেকে চলাচলকৃত বিমানের ভাড়া সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। তাই আপনাকে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে কোন বিমান চলাচল করে এবং কোন বিমানের কত টাকা ভাড়া সে সম্পর্কে ধারণা থাকতেই হবে। কারণ বিমানের ভাড়া সম্পর্কে ধারণা না থাকলে আপনি আপনার বাজেটের বাহিরে বিমান ভাড়া চলে যাবে। তাই আজকের এই আরটিকালের মাধ্যমে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হবে মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া কত টাকা এবং মালয়েশিয়া থেকে কোন কোন বিমান ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন।

মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া

বাংলাদেশ থেকে প্রচুর পরিমাণ লোক মালোশিয়াতে বসবাস করে। অনেকেই উচ্চশিক্ষা এবং কর্মক্ষেত্রের জন্য মালয়েশিয়া বসবাস করছে। তাই তাদের বিভিন্ন সময় বাংলাদেশে ব্যাক আসতে হয় কিন্তু মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে আসতে হলে অবশ্যই আপনাকে বিমানের মাধ্যমে আসতে হবে। তাই মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে কোন কোন এয়ারলাইন্স কোম্পানি ফ্লাইট পরিচালনা করে সেই সম্পর্কে আপনাদের জানতে হবে।

বর্তমানে মালয়েশিয়া থেকে বেশ কিছু দেশীয় এবং বিদেশি এয়ারলাইন্স কোম্পানি নিয়মিত পরিচালনা করছে। প্রতিটি এয়ারলাইন্স কোম্পানির আলাদা আলাদা সুযোগ সুবিধা রয়েছে এবং প্রতিটি এয়ারলাইন্সের ভাড়া ভিন্ন ভিন্ন। কিছু কিছু এয়ারলাইন্স কোম্পানি মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা সরাসরি ফ্ল্যাট পরিচালনা করে আবার কিছু কিছু এয়ারলাইন্স কোম্পানি ওয়ান স্টপ ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে।

মালয়েশিয়া থেকে বর্তমানে দেশি এয়ারলাইন্স কোম্পানি মালয়েশিয়া টু বাংলাদেশ ফ্লাইট পরিচালনা করছে সে এয়ারলাইন্স কোম্পানির নাম হচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স কোম্পানি।এছাড়াও বিদেশী বেশ কিছু এয়ারলাইন্স কোম্পানি মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা ফ্লাইট পরিচালনা করছে সেই সকল এয়ারলাইন্স কোম্পানির নাম হচ্ছে শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্স, এয়ারএশিয়া, থাই এয়ারএশিয়া, ইন্ডিগো এয়ার, মালিন্দো এয়ারওয়েস, থাই এয়ারওয়েস, সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স, মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স, কাতার এয়ারওয়েস, এমিরেটস, তুরকিশ এয়ারলাইন্স, ইতিহাদ এয়ারওয়েস ইত্যাদি।

তাই আপনারা যারা মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা বিমানে চলাচল করবেন তাদের অবশ্যই জানতে হবে মালয়েশিয়া টু বাংলাদেশ বিমান ভাড়া কত টাকা? তাই আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে খুব সহজেই আপনারা সকল এয়ারলাইন্স কোম্পানির বিমান ভাড়া সম্পর্কে জানতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশ টু মালয়েশিয়া বিমান ভাড়া কত টাকা

মালয়েশিয়া টু বাংলাদেশ বিমান ভাড়া কত

যে সকল মালয়েশিয়া প্রবাসী কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টিকিট ক্রয় করবেন তাদের আগে জানতে হবে মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া কত টাকা? মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমানের টিকিটের মূল্য সর্বনিম্ন ১৬ হাজার টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিমানের টিকিট পেয়ে যাবেন। সাধারণত ইকনোমিক ক্লাসের বিমান ভাড়া কম এবং বিজনেস ক্লাসের বিমান ভাড়া অনেক বেশি তাই আপনি কোন ক্লাসে বিমানে চলাচল করবেন তার উপর নির্ভর করবে আপনার বিমান ভাড়া।

✈️ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সঃ যে সকল প্রবাসী মালয়েশিয়া থেকে সরাসরি ঢাকা আসতেছেন তারা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে আসতে পারেন। বর্তমানে ইউএস-বাংলার ইকোনমিক ক্লাসের ভাড়া হচ্ছে ১৬,২০০ টাকা। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স সরাসরি কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকা বিমানবন্দরে চলাচল করে।

✈️বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সঃ মালয়েশিয়া থেকে সরাসরি ফ্লাইটপরিচালনা করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বর্তমানে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ইকোনমিক ক্লাসের ভাড়া হচ্ছে ১৬৭০০ টাকা।

✈️ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সঃ বর্তমানে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা আসার জন্য সবচাইতে রিজনেবল প্রাইজে বিমান টিকেট দিচ্ছে  ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স।  মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা আসার ইকোনমিক ক্লাসের  ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সবিমান ভাড়া হচ্ছে মাত্র ১৬ হাজার টাকা। ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স কোম্পানি ভারতে স্টপেজ দিয়ে বাংলাদেশ ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় তাই সময় লাগে ১৪ ঘন্টা।

✈️শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্সঃ  আপনি যদি মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে শ্রীলংকা এয়ারলাইন্স এর মাধ্যমে আসতে চান তাহলে আপনাকে বিমান ভাড়া দিতে হবে ৮৭ হাজার টাকা। কারণ শ্রীলংকার এয়ারলাইন্স বিমানটি মালয়েশিয়া থেকে শ্রীলংকা হয়ে বাংলাদেশে আসবে তাই ভাড়া পড়বে ৮৭ হাজার টাকা।

✈️সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সঃ মালয়েশিয়া থেকে বর্তমানে সিঙ্গাপুর হয়ে ঢাকায় চলাচল করে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন। তাই মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকা আসতে সময় লাগে ১৫ ঘণ্টার বেশি। বর্তমানে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের ইকোনমিক ক্লাসের ভাড়া হচ্ছে ৩০ হাজার টাকা।

✈️এয়ার এশিয়া এয়ারলাইন্সঃ বর্তমান সময়ের সবচাইতে জনপ্রিয় এয়ারলাইন্স কোম্পানি হচ্ছে এয়ার এশিয়া। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে ঢাকা বিমানবন্দরে আসতে বর্তমানে ইকনোমিক ক্লাসের ভাড়া হচ্ছে ১৬৭০০ টাকা।

✈️থাই এয়ারওয়েসঃ মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা বিমানবন্দরে আসতে তাই এয়ারলাইন্সের বর্তমান সর্বনিম্ন ভাড়া হচ্ছে ৩০ হাজার ৮০০ টাকা। আপনারা যারা তাই থাই এয়ারওয়েজ এর মাধ্যমে চলাচল করবেন তাদের থাইল্যান্ডের ব্যাঙ্ককে স্টপেজ দিয়ে আসতে হবে।

✈️মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সঃ যে সকল বাংলাদেশী প্রবাসী মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশে আসবেন তাদের ইকনোমিক ক্লাসের ভাড়া পড়বে সর্বনিম্ন ৩৩ হাজার টাকা। মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করে তাই ৩ থেকে ৪ ঘন্টার মধ্যে বাংলাদেশের চলে আসতে পারবেন।

✈️মালিন্দো এয়ারওয়েজঃ মালয়েশিয়া থেকে আরও একটি জনপ্রিয় এয়ারলাইন্স কোম্পানি হচ্ছে মালিন্দো এয়ারওয়েস। বর্তমানে মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে আসতে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া হচ্ছে ৩৩ হাজার টাকা। মালিন্দো এয়ারওয়েজ মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে বাংলাদেশের ঢাকা সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে।

✈️বিজনেস ক্লাস বিমান ভাড়াঃ  উপরের সকল এয়ারলাইন্স কোম্পানি গুলো বিজনেস ক্লাস সার্ভিস দিয়ে থাকে। বিজনেস ক্লাসের সর্বনিম্ন বিমান ভাড়া হচ্ছে ৫০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। তাই আপনারা কোন এয়ারলাইন্স কোম্পানিতে টিকিট কাটবেন সেই এয়ারলাইন্স কোম্পানির উপর নির্ভর করবে বিমান ভাড়া।

  • মালয়েশিয়া থেকে আপনারা যারা বাংলাদেশ বিমানের মাধ্যমে চলাচল করবেন তারা অবশ্যই সরাসরি ফ্লাইট নির্বাচন করবেন এতে আপনার খরচ এবং সময় দুটোই কম লাগবে। কম টাকায় ভ্রমণ করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে ইউএস-বাংলা এবং ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সে চলাচল করতে হবে।

সর্বশেষ কথাঃ

যে সকল যাত্রী গ্রহণ মালয়েশিয়া থেকে ঢাকা বিমানের মাধ্যমে চলাচল করবেন তাদের সরাসরি ফ্লাইটের সময় লাগবে ৪ ঘন্টার মত এবং আপনারা যারা ওয়ান স্টপ ট্রানজিট বিমানে চলাচল করবেন তাদের সর্বনিম্ন সময় লাগবে ১৫ ঘন্টা থেকে ৩০ ঘণ্টা পর্যন্ত। তাই আপনারা সবসময় চেষ্টা করবেন সরাসরি ফ্লাইটে চলাচল করার জন্য। আশা করি আজকের পোষ্টের মাধ্যমে আপনারা জানতে পেরেছেন মালয়েশিয়া টু ঢাকা বিমান ভাড়া কত টাকা সেই বিষয়ে।

Leave a Comment